আমির হোসেনঃ অসহায় মানুষের জন্য কিছু একটা করার প্রত্যাশায়। সেই প্রতিজ্ঞা নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয়েছে এবং আমাদের সাথে বরাবর কাজ করছে মুক্ত খবর এর স্বেচ্ছাসেবক কর্মিরা।

আমরা স্বপ্ন দেখি আকাশের থেকে বিশাল, সমুদ্র থেকে গভীর কারণ আমরা জানি সেই স্বপ্ন পুরোপুরি বাস্তবায়ন না হলেও এক বিন্দু পরিমাণ হবে, তাহলেই আমরা স্বার্থক। তাই আমরা স্বপ্নের পথে যাত্রা করি ছোট ছোট পদক্ষেপে। যেন হোঁচট খেলেও খুব দ্রুত উঠতে পারি।

এখন আমাদের ছোট্ট আরেকটি পদক্ষেপটি বাস্তবায়ন করার সময় হয়েছে। আমরা প্রতিজ্ঞা করেছি এবারের শিতে ছিন্নমূল একটি শিশুও বঞ্চিত হবে না তাদের অধিকার থেকে। এই উদ্দ্যোগে যদি আমাদের পাশে এসে কেউ না দাড়ায় তবুও আমরা নির্ভীকভাবে সামনে এগিয়ে যাব এই প্রতিজ্ঞা নিয়ে http://www.muktokhoborbd.com এবং https://www.facebook.com/newsmegazine/  কাজ করছে। আমাদের ইভেন্ট পেজ https://www.facebook.com/events/264618204216796/?event_time_id=264618210883462

 

শীতার্থ অসহায় পথ শিশুর পাশে আমরা কজন – শীতবস্ত্র বিতরণ কর্মসুচি ২০১৮

অন্তত দশটি শিশুর মুখে যদি হাসি ফুটাতে পারি তাহলে সেটাই আমাদের স্বার্থকতা। আমাদের উদ্দ্যোগ হল এবারের শিতে ছিন্নমূল শিশুদের জন্য কিছু উপহার সামগ্রী সংগ্রহ করব। উপহারের মধ্যে আমাদের মূল লক্ষ্য কিছু আর্থিক সাহায্য। যে যাই পারি আমরা সাহায্য করব। আমাদের এই ভাই-বোনদের পাশে এসে সবাই দাড়ান। প্রত্যেকে যদি একটি সোয়েটার বা উহার সমপরিমান এর মুল্য দেই তাহলেই কিন্তু আমরা অনেকদুর এগিয়ে যাব।

আসুন আমরা যে যা পারি তাই দিয়েই এদের পাশে এসে দাড়াই। এরা আমাদের ই – এরা আমাদের দিকেই চেয়ে থাকে।

উপহার সামগ্রী সংগ্রহের ব্যাপারে আমাদের চিন্তাধারা :

১। আমরা নিজেরাই যাই পারি অর্থ সংগ্রহ করব ।

২। নিজেদের আত্মীয়-স্বজন, প্রতিবেশী, আশেপাশের মানুষদের কাছে থেকে অর্থ সংগ্রহ করব।

৩।। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে গিয়ে আমরা সাহায্য চাইব।

রাজপথের অসহায় আমাদের ভাই-বোনদের জন্য আপনিও যা যা করতে পারেন :

১। আমাদের এই উদ্দ্যোগটি সফল করতে সকল প্রকার ব্লগ সাইটগুলোতে এবং ফেসবুকের পেজ গুলোতে এই পোষ্টটি প্রকাশ করুন। তবে অবশ্যই মূল পোষ্টের লিঙ্ক দিবেন। তাহলে সব আলোচনা একই জায়গায় করা যাবে। অন্যথায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে যাবে। আর অবশ্যই ফেসবুক, টুইটারে এই পোষ্টটি করে সবাইকে জানিয়ে দিয়ে অন্যকে উৎসাহিত করে নীরব ভূমিকা অন্তত পালন করুন।