: স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

রাজধানীর মৎস্য ভবনের সামনে এক ফটো সাংবাদিকের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ ও মারধর করায় ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট মুস্তাইনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

বুধবার (১১ অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে রাজধানীর মংস্য ভবন মোড়ে দৈনিক মানবজমিন পত্রিকার ফটো সাংবাদিক মো. নাসির উদ্দিন ওই ট্রাফিক সার্জেন্টের নিপীড়নের শিকার হন।

এ ঘটনায় ট্রাফিক সার্জেন্ট মুস্তাইনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে গনমাধ্যম কে নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ট্রাফিক-দক্ষিণ বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) রিফাত রহমান শামীম।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় ট্রাফিক-দক্ষিণের সহকারী কমিশনার (এসি) ঘটনাস্থলে তদন্ত করেছেন। প্রাথমিক তদন্তে ট্রাফিক সার্জেন্ট মুস্তাইনের অসৌজন্যমূলক আচরণ’ পাওয়া গেছে। এজন্য তাকে ক্লোজড করা হয়েছে।

পূর্ণাঙ্গ তদন্তের পর তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান উপ-কমিশনার (ডিসি) রিফাত রহমান শামীম।

ভুক্তভোগী ফটো সাংবাদিক নাসির উদ্দিন বলেন, “বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে প্রেসক্লাব থেকে অফিসে যাওয়ার পথে মৎস্য ভবনের সামনে আমাকে আটকে গাড়ির কাগজপত্র দেখতে চান সার্জেন্ট মুস্তাইন। কাগজপত্র ঠিক থাকলেও সঙ্গে হেলমেট না থাকায় একটি মামলা দিতে চান ওই সার্জেন্ট।

আমি সার্জেন্টকে জানাই, তিনদিন আগে আমার হেলমেট চুরি হয়েছে। বেতন পেলে কিনে ফেলবো। কিন্তু তিনি কোন কথা না শুনেই আমাকে মামলা দেন।”

ফটো সাংবাদিক আরও বলেন, “আমি ব্যাগ থেকে ক্যামেরা বের করলেই সার্জেন্ট মুস্তাইন আমার টি-শার্টের কলার ধরে এবং ক্যামেরা কেড়ে নিয়ে অন্য এক পুলিশ সদস্যের হাতে দেন। ওই পুলিশ সদস্য আমাকে চর-থাপ্পর মেরে পুলিশ বক্সে নিয়ে যান। পরে সিনিয়র সাংবাদিকরা এসে আমাকে সেখান থেকে উদ্ধার করেন।”

Please follow and like us:
error