– ঈদের পরে নিজ কর্মস্থল/বাসস্থানে ফিরে আসতে সময় নিয়ে ভ্রমণ পরিকল্পনা করুন। শেষ মুহুর্তের যাত্রায় ট্রেন, বাস, লঞ্চ ও ফেরিঘাটের মারাত্মক ভীড় এড়িয়ে চলুন।

– নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অতিরিক্ত যাত্রী হিসেবে ট্রেন, বাস, লঞ্চ বা স্টিমারে চলাচল করবেন না। ট্রেন/লঞ্চ/বাসের ছাদে/ট্রাকে ভ্রমণ বিপদজনক।

– দ্রুতগতিতে গাড়ি চালানো বিপদজনক। চালক যাতে নিয়মতান্ত্রিকভাবে গাড়ি চালায় সেটাকে প্রাধান্য দিন। অপেশাদার/ক্লান্ত চালকের হাতে গাড়ি দেবেন না।

– রেল স্টেশন, বাস ও লঞ্চ টার্মিনালে, যাত্রা পথে অপরিচিত কোন ব্যক্তি, হকার/ফেরিওয়ালার কাছ থেকে বা খোলা খাবার ও পানীয় গ্রহণ করবেন না। এতে অজ্ঞান পার্টির কবলে পড়ার আশঙ্কা থাকে।

– মহাসড়কে নছিমন/করিমন/ভ্যান/রিকশা চলাচল বন্ধ রাখুন।

– দুর্ঘটনা কবলিত নৌযান সনাক্তকরণের লক্ষ্যে নৌযান মালিকগণ নৌযান সমূহে ১০০-১৫০ ফুট লম্বা দড়ি সম্বলিত বয়া এবং লাইফ জ্যাকেটের ব্যবস্থা রাখুন।

– ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী বহন করবেন না।

– সন্দেহভাজন অজ্ঞান পার্টি/প্রতারক চক্রের সদস্য সম্পর্কে তাৎক্ষণিকভাবে নিকটস্থ পুলিশকে জানান।

– পুলিশের সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন:
পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের কন্ট্রোল রুম- ৯৫৬১৯৬৭, ৯৫৬০৬৬১, ০১৭৬৯৬৯০০৩৩, ০১৭৬৯৬৯০০৩৪, ঢাকা মহানগর পুলিশ কন্ট্রোল রুম- ৯৫৫৯৯৩৩, ৯৫১৪৪০০, ৯৫৫১১৮৮, ০১৭১৩৩৯৮৩১১, এসবি কন্ট্রোল রুম- ৯৩৩৩২১৭, ০১৭২০৯৯৬৪০৩, সিআইডি কন্ট্রোল রুম-৯৩৩১০৪৩, ০১৭৩০৩৩৬৩৩৯, র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) কন্ট্রোল রুম- ৭৯১৩১১৭, ০১৭৭৭৭২০০২৯, ফায়ার সার্ভিস সেন্ট্রাল কন্ট্রোল রুম- ৯৫৫৫৫৫৫-৭, ০১৭৩০৩৩৬৬৯৯। এছাড়াও জেলা পুলিশ সুপার ও থানার অফিসার ইনচার্জের (ওসি) এর সাথে যোগাযোগের জন্য বাংলাদেশ পুলিশের ওয়েব সাইট (www.police.gov.bd) থেকে নম্বর সংগ্রহ করুন।

Please follow and like us:
error